বুধবার, ০৮ Jul ২০২০, ০৮:২৫ অপরাহ্ন

রাজৈরে যুবককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা । দুইজন গ্রেফতার । আসামীর স্বীকারোক্তি জবানবন্দী

রাজৈরে যুবককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা । দুইজন গ্রেফতার । আসামীর স্বীকারোক্তি জবানবন্দী

রাজৈর প্রতিনিধি।
মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের বালিয়ার বিলের মুচারকান্দি ব্রীজের পাশে (২২ জুন) সোমবার রাতে ইকবাল মোল্যা (৪০) নামে এক ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালক ও সুদের কারবারিকে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় বুধবার নিহতের ভাই মঞ্জু মোল্যা বাদি হয়ে ১০/১২ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে । পুলিশ ওইদিন রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে টেকেরহাট বন্দরে অভিযান চালিয়ে এ হত্যার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে । গ্রেফতারকৃত শাখারপাড় গ্রামের মর্তুজা মোল্যার ছেলে আজাদ মোল্যা (২৫) ও মহেন্দ্রদী গ্রামের মোতালেব হাওলাদারের ছেলে খোকন হাওলাদারকে (২২) গ্রেফতারের পর ব্যাপক জিজ্ঞাবাদের মুখে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করে । পুলিশ তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা একটি শ্যাণ-দা, রক্তমাখা রশি ও একটি টর্চলাইটসহ অন্যান্য জিনিসপত্র উদ্ধার করে । পরে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেয়ার জন্য মাদারীপুর বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করে । বৃহস্পতিবার বিকালে জেলা পুলিশ সুপার এক প্রেস ব্রিফিং করে এ তথ্য জানান ।
প্রেস ব্রিফিং এ জানায়, নিহত ইকবাল মোল্যা আসামী আজাদ মোল­ার কাছে ৭০ হাজার টাকা পাইতো । উক্ত পাওয়ানা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই জনের মধ্যে মনমানিল্য সৃস্টি হয় । তারই জের ধরে আজাদ, খোকন ও তাদের সহযোগিদের নিয়ে ইকবাল মোল্যাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে পুলিশের নিকট স্বীকার করে এবং তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক আসামী আজাদ মোল্যার বাড়ি থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা একটি (ধারালো অস্ত্র) শ্যাণ-দা, রক্তমাখা একটি রশি ও একটি টর্চলাইটসহ অন্যান্য জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয় । অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।

উলে­খ্য পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বদরপাশা ইউনিয়নের উমারখালী গ্রামের সুন্দর মোল্যার ছেলে ইকবাল মোল্যা (৪০) ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালাতেন এবং গ্রাম পর্যায়ে সুদে টাকার কারবার করতেন । সোমবার বিকাল ৪টার দিকে ইকবাল তার মোটর সাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয় । এর পর সে নিখোঁজ হয় । মঙ্গলবার সকালে পথচারীরা উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের শাখারপাড় নতুন রাস্তার পাশে ধানের জমিতে ইকবালের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় । পরে পুলিশ এসে ইকবালের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করে এবং রাস্তার পাশ থেকে ইকবালের ব্যবহৃত মোটর সাইকেলটিও উদ্ধার করে। নিহত ইকবালের স্ত্রী মুর্শিদা বেগম জানায়, আমার স্বামী সোমবার বিকাল ৪টার দিকে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হয় । তার পর থেকে আমার স্বামীর মোবাইল বন্ধ পাই । মঙ্গলবার সকালে খবর পাই আমার স্বামীকে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করে লাশ উক্ত স্থানে ফেলে রেখে গেছে দুর্বৃত্তরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020

Design & Developed by : JM IT SOLUTION
error: Content is protected !!