1. abdulmotin52@gmail.com : ABDUL MOTIN : ABDUL MOTIN
  2. madaripurprotidin@gmail.com : ABID HASAN : ABID HASAN
  3. jmitsolutionbd@gmail.com : support :
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগের পক্ষে-বিপক্ষে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনকে ঘিরে ব্যাপক সংঘর্ষ,  ব্যাংক মোটরসাইকেল ও দোকানপাট ভাংচুর , ৩ পুলিশসহ আহত ১৫ জন  - Madaripur Protidin
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজৈরে নলকূপ খননে বের হচ্ছে গ্যাস, জ¦লছে আগুন, স্থানীয়রা আতঙ্কে আমতলীতে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার টেকনাফ হোয়াইক্যং থেকে ৯,৯৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫  বরগুনা জেলার সদর থানায় ভ্রাম্যমান আদালতে তিন ব্যবসায়িকে অর্থদন্ড প্রদান রাজধানীর দারুস সালামে ৩৭ লক্ষ টাকার হেরোইনসহ ৩ মাদক কারবারী গ্রেফতার বাস ও মোটরসাইকেল জব্দ উচ্চাভিলাষী হেলেনা জাহাঙ্গীরের অন্যতম দুই সহযোগীকে গাবতলী থেকে গ্রেফতার রাজধানীর মিরপুরে ডাঃ ঈশিতার সব সাফল্যই ভুয়া। সহযোগিসহ গ্রেফতার কক্সবাজারের উখিয়া থেকে ২০,০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ১  রোহিঙ্গা মাদক কারবারী গ্রেফতার  কক্সবাজারের ঈদগাঁও থেকে ৫৬ টি পাসপোর্ট ও পৌনে পাঁচ টাকাসহ ১ জন প্রতারক গ্রেফতার ঢাকা জেলার সাভার হতে ১১ বছরের শিশু অপহরণের ৪দিন পর ভূক্তভোগীকে উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেফতার

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদত্যাগের পক্ষে-বিপক্ষে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনকে ঘিরে ব্যাপক সংঘর্ষ,  ব্যাংক মোটরসাইকেল ও দোকানপাট ভাংচুর , ৩ পুলিশসহ আহত ১৫ জন 

  • প্রকাশিত : শনিবার, ১২ জুন, ২০২১, ৬.৪৬ পিএম
  • ৩৯ জন পঠিত

রাজৈর প্রতিনিধি।।
রাজৈর উপজেলার খালিয়া শান্তিকেন্দ্রে ঈদ পরবর্তী পুর্নমিলনী সভায় মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন মোল্লার একটি বক্তব্যকে কেন্দ্র করে একই স্থানে পক্ষে-বিপক্ষে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনে আওয়ামীলীগের বিবাদমান দুই গ্র“পের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাঠিচার্জ করে উভয়পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয় । এতে ৩ জন পুলিশ, এক সাংবাদিকসহ আহত হয় অন্তত আহত ১৫ জন। এ সময় দুটি ব্যাংক, বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করা হয়। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের সদর উপজেলার কলাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় মহাসড়েক আধা ঘন্টা বন্ধ থাকে যান চলাচল।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী ও মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শাজাহান খানের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক এমপি, মৌলভী আছমত আলী খানকে নিয়ে সমালোচনামূলক বক্তব্য দেওয়াকে কেন্দ্র করে মাদারীপুর ও রাজৈরে বেশ কিছুদিন ধরে আওয়ামীলীগের দুই গ্র“পের মধ্যে পাল্টাপাল্টি প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন হয়ে আসছিল । এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকাল ১০টার সময় মৌলভী আছমত আলী খানকে নিয়ে সমালোচনাকারী মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন মোল্লার পদত্যাগের দাবিতে এমপি শাজাহান খান গ্র“পের নেতা কর্মীরা ঢাকা- বরিশাল মহাসড়কের সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের কলাবাড়ি স্ট্যান্ডে একটি মানবন্ধনের আয়োজন করে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম ও মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন মোল্লা গ্র“পের নেতা কর্মীরা একই স্থানে সভা ও মানববন্ধন করতে গেলে দুই গ্র“পের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় দুই গ্র“পের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বাইরে গেলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয় । এতে তিন পুলিশ ও এক সাংবাদিকসহ আহত হয় অন্তত ১৫ জন। এ সময় উত্তেজিত নেতাকর্মীরা পাশের বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ও ইসলামী ব্যাংকের ঘটকচর শাখা এবং বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল, দোকান ও ঘরবাড়ি ভাংচুর করে। খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে পুলিশ।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হোসেন অনিক বলেন, শেখ হাসিনার কারামুক্তি উপলক্ষ্যে কেন্দুয়া আওয়ামীলীগের উদ্যোগে রাস্তার পাশে মানববন্ধন চলছিল। এসময় শাজাহান খানের সমর্থকরা আমাদের ওপর হামলা চালায়।

জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রুবেল খান বলেন, মরহুম আচমত আলী খান জেলার সকলের শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। তিনি জেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, সাবেক এমপি ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন। তাকে স্বাধীনতা পদক দিয়েছেন আমাদের সফল প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। সেই পদক নিয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা সমালোচনা করে বক্তব্য দিয়েছেন। শাহাবুদ্দিন মোল্লা তার বক্তব্যের মাধ্যমে তো আচমত আলী খানকে নয় বরং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অসম্মান করছেন প্রশ্ন বিদ্ধ করেছেন। এখনও সময় আছে শাহাবুদ্দিন মোল্লা যদি প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চায় তা হলে সব সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। তিনি তা না করে আমরা যেখানে প্রতিবাদ সভা বা মানববন্ধন করছি সেখানে লোক পাঠিয়ে হামলা করছেন। শাহাবুদ্দিন মোল্লা গ্র“পের মানববন্ধন ছিল সকাল ৮ টা থেকে ৯টা। আর আমাদের সময় সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা। ১০টার পরে আমরা মানববন্ধন করলে শাহাবুদ্দিন মোল্লার সমর্থকরা আমাদের ওপর হামলা চালায়।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. এহসানুল রহমান ভুইয়া জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে বাইরে গেলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এতে তিন পুলিশও আহত হয়। বর্তমানে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বমোট ভিজিট করা হয়েছে

© All rights reserved © 2021

Design & Developed By : JM IT SOLUTION
error: Content is protected !!