1. abdulmotin52@gmail.com : ABDUL MOTIN : ABDUL MOTIN
  2. madaripurprotidin@gmail.com : ABID HASAN : ABID HASAN
  3. jmitsolutionbd@gmail.com : support :
মাদারীপুরে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় আটক নারীসহ ৮জন কারাগারে - Madaripur Protidin
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৪:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজৈরে নলকূপ খননে বের হচ্ছে গ্যাস, জ¦লছে আগুন, স্থানীয়রা আতঙ্কে আমতলীতে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার টেকনাফ হোয়াইক্যং থেকে ৯,৯৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫  বরগুনা জেলার সদর থানায় ভ্রাম্যমান আদালতে তিন ব্যবসায়িকে অর্থদন্ড প্রদান রাজধানীর দারুস সালামে ৩৭ লক্ষ টাকার হেরোইনসহ ৩ মাদক কারবারী গ্রেফতার বাস ও মোটরসাইকেল জব্দ উচ্চাভিলাষী হেলেনা জাহাঙ্গীরের অন্যতম দুই সহযোগীকে গাবতলী থেকে গ্রেফতার রাজধানীর মিরপুরে ডাঃ ঈশিতার সব সাফল্যই ভুয়া। সহযোগিসহ গ্রেফতার কক্সবাজারের উখিয়া থেকে ২০,০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ১  রোহিঙ্গা মাদক কারবারী গ্রেফতার  কক্সবাজারের ঈদগাঁও থেকে ৫৬ টি পাসপোর্ট ও পৌনে পাঁচ টাকাসহ ১ জন প্রতারক গ্রেফতার ঢাকা জেলার সাভার হতে ১১ বছরের শিশু অপহরণের ৪দিন পর ভূক্তভোগীকে উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেফতার

মাদারীপুরে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় আটক নারীসহ ৮জন কারাগারে

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১, ৭.৩৮ এএম
  • ৩৩৩ জন পঠিত

রাজৈর প্রতিনিধি।
মাদারীপুরে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে মোটেল মতি (আবাসিক হোটেল) থেকে আটক হওয়া ৫ নারীসহ ৮ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাইদুর রহমান এই নির্দেশ প্রদান করে। আটককৃতরা হলো, শহরের পুরাতন বাসন্ট্যান্ড এলাকার মোটেল মতির ব্যবস্থাপক ও কুকরাইল গ্রামের নাজিমউদ্দিন হাওলাদারের ছেলে সেলিম হাওলাদার (৩৮), শহরের শকুনী এলাকার আলমগীর শিকদারের ছেলে হারুন শিকদার সজিব (৩৫) এবং শিবচর উপজেলার ভান্ডারীকান্দি গ্রামের আবুল কালাম বেপারীর ছেলে মোক্তার হোসেন (২৩) ও পাঁচজন নারী।
মামলার এজাহারে বলা হয়, শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবস্থিত মোটেল মতি’তে (আবাসিক হোটেল) অসামাজিক কার্যক্রম চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার দুপুরে অভিযান চালায় জেলার গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। এ সময় মোটেল মতি থেকে ৫ নারী ও তিনজন পুরুষকে আটক করা হয়। তাদের ঘটনাস্থলে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আটককৃতরা দেহ ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। পরে তাদের আটক করে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অবস্থিত ডিবি অফিসে নিয়ে আসা হয়। রাতে আটককৃতদের বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশের এসআই ফরহাদ রাহী মীর সদর মডেল থানায় দেহ ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করে মানব পাচার দমন আইনে ৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে তাদের সোমবার দুপুরে পাঠানো হয় আদালতে। আদালতের বিচারক তাদের সবাইকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন। পরে পুলিশের গাড়ি করে তাদের কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।
মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আব্দুল হানান জানান, আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপের জড়িত থাকায় আটক ৮ জনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। বিজ্ঞ আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন। এই দেহ ব্যবসার সাথে জড়িতদের মূল হোতা সেলিম হাওলাদার মামলার প্রধান আসামী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে এই ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছেন। এছাড়া অজ্ঞাত আসামীদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বমোট ভিজিট করা হয়েছে

© All rights reserved © 2021

Design & Developed By : JM IT SOLUTION
error: Content is protected !!